২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ৬ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০১৭ইংরেজী
বুধবার, 26 নভেম্বর 2014 17:31

মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সুরজিত বড়ুয়ার সাথে কিছুকথা

লিখেছেনঃ নির্বাণা ডেস্ক

মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সুরজিত বড়ুয়ার সাথে কিছুকথা

ছায়া সুনিবির, শান্তির নীড়...!

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি থানার ছিলোনীয়া গ্রাম, অনেক গুণীজনদের জন্মস্থান হিসাবে খ্যাত একটি প্রসিদ্ধ স্থান বলা চলে। এছাড়াও শিক্ষা সংস্কৃতি ও খেলাধুলায় এই গ্রামের রয়েছে গৌরবগাথা অনেক সুখস্মৃতি। সেই ছেলেবেলা থেকেই খেলাধুলা, সংস্কৃতি ও নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে নিজেকে মাতিয়ে রাখতেন বাবা মায়ের আদরের ছোট্ট বাবুটি, বয়েসের তুলনায় সব কিছুতেই ছিল তার অদম্য সাহস আর পরপোকারী মানসিকতা তাই গ্রামের সবাই তাকে আদর করে ‘পুটু’ নামে ডাকতেন। ছেলেবেলা থেকেই পুটু মানবতার ধর্মে দিক্ষিত ছিলেন, যার অনেক প্রমান মেলে তার ছেলেবেলার ধর্মীয় স্থান গ্রামের প্রসিদ্ধ বৌদ্ধ মন্দিরে, যেখানে ভিক্ষুদের প্রিয়ভাজন হিসাবে পরিচিতি ছিল এবং অদ্যবদি সেই সুনাম অক্ষত রেখেছেন সুরজিত বড়ুয়া, যার পারিবারিক নাম পুটু । পড়াশুনার পাশাপাশি চট্টগ্রামের বিভাগীয় ফুটবল টিমে নিজেকে একাদশ অবস্থানে টিকিয়ে রেখেছেন, সেই সাথে শুনামের সহিত গ্রাজুয়েশন শেষ করে কর্ম জীবন শুরু করেন। সুরজিত বড়ুয়ার জন্ম স্থান চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি থানার ছিলোনীয়া গ্রাম। পিতা প্রয়াত স্বর্ণকমল বড়ুয়া ও মাতা সাধনা প্রভা বড়ুয়ার কনিষ্ট সন্তান। চার ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট। সাংসারিক জীবনে তিনি বিবাহিত, স্ত্রী ঝুমু বড়ুয়া এবং একটি কন্যা সন্তান আরুশি বড়ুয়া সৃজা’র গর্বিত পিতা।

কর্মজীবনের ধারায়...

প্রথম কর্মজীবন কে,ডি,এস, গ্রুপে, পরবর্তিতে তিনি চট্টগ্রামে বায়িং হাউজ সহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে সুনামের সহিত কাজ করেছেন। প্রিয় বন্ধু দেবাশীষ বড়ুয়া দীপ (বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় নাট্য পরিচালক) ও শ্রদ্ধেয় বৌদি সীমা বড়ুয়ার অনুপ্রেরনায় ২০০৩ সালে তিনি ঢাকায় চলে আসেন, এবং তখন থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে, কর্মজীবন শুরু করেন এদেশের স্বনামধন্য মিউজিক চ্যানেল ফাল্গুন মিউজিক সহ ওয়ার্ল্ড মিউজিক এর ব্যানারে জি,এম, হিসাবে। ওয়ার্ল্ড মিউজিকের কর্নধার এজাজ খান স্বপন-এর কাছে হাতে কলমে অনেক কাজ শিখেছেন সুরজিত বড়ুয়া এব্যাপারে তিনি এজাজ খান স্বপন-এর কাছে কৃতজ্ঞতা ব্যাক্ত করেন সবসময়ে। ২০০৪ইং সালের শেষদিকে তিনি বাংলাদেশের প্রথম স্যটেলাইট চ্যানেল এটিএন বাংলার সহযোগী প্রতিষ্ঠান এটিএন মিউজিক লিমিটেড এ ম্যানেজার হিসাবে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশের প্রথম থ্রিজি ভিত্তিক অনলাইন টিভি চ্যানেল এটিএন মিউজিক ডট টিভিতে সি ই ও হিসাবে কর্মরত আছেন । কর্মই ধর্ম মন্ত্রে দিক্ষিত তার জীবন দর্শন, সততা নিষ্ঠা নিয়মাবর্তিতা প্রতিনিয়ত লালন করেন সুরজিত বড়ুয়া। আর তারই ধারাবাহিকতার প্রতিফলন ঘটেছে তার কর্ম জীবনের প্রতিটা পদক্ষেপে । কর্মক্ষেত্রে নিজের পদোন্নতির থেকে কাজের গুরুত্বটাকেই বেশী প্রাধান্য দেন তিনি।

সামাজিক দায়বদ্ধতা ও ধর্মীয় কর্মকান্ডে সম্পৃক্ততা…

কর্মজীবনের পাশাপাশি ধর্মীয় কর্মকান্ডে নিজেকে সার্বক্ষনিক নিয়জিত রাখতে ভালবাসেন সুরজিত বড়ুয়া। ঢাকায় আসার পরথেকেই বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘ ও বাংলাদেশের বুড্ডিস্ট ফেডারেশন এর সকল আলোচনা আনুষ্ঠানে নিজেকে সংপৃক্ত রাখতেন তিনি। বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সভাপতি সংঘনায়ক শুদ্ধানন্দ মহাথের, শ্রদ্ধানন্দ ও সুমনাশ্রী ভান্তের সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখতেন তিনি এবং সেই সাথে ধর্মীয় সকল পূজনীয় ভান্তেদের সাথে তার সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলেন তিনি। এছাড়াও ঢাকার সবুজবাগস্থ বাসাবো ধর্মরাজিক বৌদ্ধ মহাবিহারে নিয়মিত যাওয়া আসা ছিল তার দৈনন্দিন কর্মকান্ডের মধ্যে প্রার্থনা ও ধর্মিয় রিতিনীতির অনুসারী ছিলেন সুরজিত বড়ুয়া । ধর্মীয় সকল আচার অনুষ্ঠানে সবসময় নিজেকে সম্পৃক্ত রাখতে ভালবাসতেন সুরজিত বড়ুয়া এবং সেই সাথে ধর্মীয় প্রচার প্রচারনা করতেন অন্য ভান্তে বৃন্দদের সাথে । নিজের কর্মস্থল এটিএন বাংলার সুবাদে ধর্মীয় সকল আচার আনুষ্ঠান কিভাবে সারা বিশ্ববাসীর কাছে পৌছে দেওয়া যায়, সে ব্যাপারে নানান চিন্তা ভাবনা করতেন তিনি । এ ব্যাপারে ২০০৫ইং সালে এটিএন বাংলার মাননীয় চেয়ারম্যান ড. মাহ্ফুজুর রহমান সাহেবের সাথে একান্ত আলোচনা করে প্রস্তাবনা পেশ করেন তিনি । জনাব ড.মাহ্ফুজুর রহমানের মহানুভবতা এবং বিচাক্ষন দৃষ্টিভংঙ্গী তাকে আরোও অনুপ্রানিত করে এ ব্যাপারে সকল কর্মকান্ড পরিচালনা করার জন্য, সেই থেকে গত আট বছর যাবৎ সমগ্র বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের বিশেষ অনুষ্ঠান যেমন বুদ্ধ পূর্নিমা, প্রবারনা পূর্নিমা, কঠিন চিবর দান সহ অতীশ দীপংকর ও বিশুদ্ধানন্দ স্বর্ণ পদক অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করে আসছে এটিএন বাংলা । এব্যাপারে তার অক্লান্ত পরিশ্রম ও নিরালশ প্রচেষ্ঠা অব্যাহত রয়েছে সব সময়।

সবশেষে সুরজিত...

সুরজিত বড়ুয়া বলেন, মহামানব বুদ্ধের কাছে আমার একটাই প্রার্থনা যে, আমি অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও যেন আমার বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সকল সামাজিক ও মানবিক কর্মকান্ডে নিজেকে সমৃক্ত রাখার পাশাপশি বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সকল ভাই বোনদের সুখে দু:খে পাশে দাঁড়াতে পারি এবং সেই সাথে আপনাদের আর্শীবাদ আমার একান্ত কাম্য ।

সবশেষে সুরজিত বড়ুয়া বিশেষ করে বিশ্ব বৌদ্ধ সৌভ্রাতৃত্ব সংঘ যুব’র আঞ্চলিক কেন্দ্র “নির্বানা পিস ফাউন্ডেশন” এবং “নির্বানা” পত্রিকার সকল পাঠক ও শুভনুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানিয়ে বলেনঃ মোর নাম এই বলে খ্যাত হোক...আমি তোমাদেরই লোক। জগতের সকল প্রানী সুখী হউক ।।

এটিএন বাংলার মাননীয় চেয়ারম্যান ড. মাহ্ফুজুর রহমানের ভাষণের ভিডিও লিংকঃ

https://www.facebook.com/video.php?v=762245890521744&set=p.762245890521744&type=2&theater

Additional Info

  • Image: Image