২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ১১ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ রবিবার, ২৫ জুন ২০১৭ইংরেজী
সোমবার, 02 জুন 2014 00:11

সীবলী পরিত্রাণের বাংলা

লিখেছেনঃ নির্বাণা ডেস্ক

সীবলী পরিত্রাণের বাংলা

১* মহাজ্ঞানী বুদ্ধশিষ্যগণ সকলেই শ্রাবক পারমী পুর্ণ করিয়াছিন।সীবলী ও পারমী গুণতেজ সম্বলিত সেই পরিত্রাণ পাঠ করিতেছি।(বন্ধনী স্থিত বিষয়গুলীর অর্থ সুবোধ্য নহে) সম্ববত সীবলী গুণ প্রকাশক সাংকেতিক শব্দ।

২* সমস্ত স্বভাব ধর্মে চক্ষুষ্মান পদুমুত্তর নামক বুদ্ধ এই হইতে লক্ষকল্প পুর্বে জগতে আবির্ভুত হয়েছিলেন।

৩* সীবলী মহাস্থবির চতুর্ব্বিধ প্রত্যয়দি পাইবার যোগ্য মহাপুরুষ।তিনি দেব-মানবগনের,উত্তম ব্রহ্মাগণের ও নাগসুপর্ণগণের প্রিয়পাত্র ছিলেন।সেই পীণেন্দ্রীয় মহাপুরুষকে আমি নমস্কার করিতেছি।

৪* তিনি দেব-মানবগনের পূজিত,তাহারগুন প্রকাশক “নাসং সীসো চ মোসীসং, নানজালীতি সংজলিং”এই বাক্যের প্রভাবে আমার সকল বিষয় লাভ হোক।

৫* আমি ভুমিষ্ট হইবার সময় সাপ্তহকাল মাতৃযোনিতে মহাদুঃখ পাইয়াছি।আমার মাতাও এইরূপ মহাদুঃখ ভোগ করিয়াছেন।

৬* আমি প্রব্রজ্যার জন্য কেশচ্ছেদনের সময় অর্হত্ব প্রাপ্ত হইয়াছি।দেব-নাগ-মনুষ্যগণ আমার জন্য উপকরণ করিয়া থাকেন।

৭* আমি পদুমুত্তর ও বিপস্ সী নামক বিনায়ক বুদ্ধকে বিশেষ বিশেষ বস্তুর দ্বারা সতুষ্ট চিত্তে পূজা করিয়াছি।

৮* তাঁহাদের বিশিষ্টতা ও বিপুল উত্তম কর্মের প্রভাবে,বনে-গ্রামে-জলে-ও স্থলে এই মহাপৃথিবীর সহ সর্বত্র আমার প্রয়োজনীয় বস্ত লাভ করিয়া থাকি।

৯-১০* তখন দেবতা আমার জন্য উত্তম বস্তু আনিয়াছিলেন।আমি সেই উপকরণের দ্বারা সঙ্ঘসহ লোকনায়ক বুদ্ধকে পুজা করিলাম।ভগবান বুদ্ধ রেবত স্থবিরকে দর্শন করিতে গেলেন।সেইখান হইতে জেতবনে প্রত্যাবর্ত্তন করিয়া আমাকে লাভীদের মধ্যে শ্রেষ্টস্থান প্রদান করিলেন।

১১-১২* জগতের অগ্রনায়ক বুদ্ধ ত্রিশহাজার ভিক্ষুসহ যখন রেবত স্থবিরকে দেখিতে গিয়াছিলেন,তখন সর্ব্বলোক হিতৈষী শাস্তা ভিক্ষুদিগকে ডাকিয়া কহিলেন-হে ভিক্ষুগণ,আমার লাভী শিষ্যদের মধ্যে*সীবলী অগ্র* এই বলিয়া পরিষদের মধ্যে আমার প্রশংসা করিয়াছিলেন।

১৩* আমার সমস্ত ক্লেশ দগ্ধ হইয়া গিয়াছে।সমস্ত ভব(অর্থাৎ উৎপত্তির কারণ)বিহত হইয়াছে।আমি বন্ধনছিন্ন হস্তীতুল্য সংসার-বন্ধন শুন্য হইয়া বিহরণ করিতেছি।

১৪* ভগবান বুদ্ধের চরণ তলে আগমন আমার পক্ষে “স্বাগতম” অর্থাৎ সুন্দর আগমন হইয়াছে।আমি ত্রিবিদ্যা লাভ করিয়া বুদ্ধের শাসন প্রতিপালন করিয়াছি।

১৫* আমি চারি প্রতিসম্ভিদা ,অষ্টবিমোক্ষ ও ষড় অভিজ্ঞা প্রত্যক্ষ করিয়া বুদ্ধশাসন রক্ষা করিয়াছি।

১৬-১৭* বুদ্ধপুত্র,জিনশ্রাবক,মহাতেজীয়ান,মহাবীর,মহাস্থবির সীবলী নিজের শীলতেজে জিন-শাসন রক্ষা করিয়া যশস্বী-ধনবান সদৃশ ছিলেন।

১৮* বুদ্ধ মার সৈন্য পরাজয় করিবার জন্য কল্পকাল স্থায়ী বোধিদ্রুম মূলে উপবেশন করিয়াছিলেন।(সেই সত্য বাক্যের প্রভাবে )সীবলী আমাকে সর্ব্দা রক্ষা করুন ।

১৯* আমার (একান্ত পুজনীয়)সীবলী স্থবির অগ্রলাভী দশবিধ পারমিতা পূর্ণ করিয়া গৌতম জিন-শাসনে প্রব্রজ্যা গ্রহণ পুর্বক শাক্যপুত্র নামে পরিচিত হইয়াছেন।

২০* ভগবান বুদ্ধের অশীতিজন মহাশ্রাবকের মধ্যে পূণ্ণস্থবির যশস্বী আর ভোগ্য বস্তু লাভী মধ্যে সীবলী অগ্রলাভী।তাহাদিগকে আমি অবনত শিরে বন্দনা করিতেছি।

২১* বুদ্ধগুণ অচিন্তনীয়,বুদ্ধ ধর্ম্মগুন অচিন্তনীয়,এ প্রকার অচিন্তনীয় বিষয়ে যাঁহারা প্রসন্ন হন, তাহাদের প্রসন্নতার ফলও অচিন্তনীয়।

২২* তাঁহাদের সত্য,শীল,ক্ষান্তি ও মৈত্রী বলের দ্বারা তাঁহারা আমাকে রক্ষা করুন,আমার সকল দুঃখ বিনাশ হউক।

Additional Info

  • Image: Image