২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ইংরেজী
Showers

24°C

Chittagong

Showers

Humidity: 94%

Wind: 22.53 km/h

  • 11 Dec 2017

    Rain 26°C 22°C

  • 12 Dec 2017

    Partly Cloudy 27°C 20°C

  • সেই খানেরই গলদ, যেখানে সততা নেই। টাকা পয়সার দিকে নজর দিলে কাজের নেশা নষ্ঠ হয়ে যায়। টাকা পয়সা বড় কথা নয়, কাজ চাই।

    মহাসংঘনায়ক শ্রীসদ্ধর্মভাণক বিশুদ্ধানন্দ

  • আমাদের সমাজে যে এখনো কোন বড় কোন প্রতিভার জন্ম সম্ভব হচ্ছে না, তার কারণ পরশ্রীকাতরতা। আমরা গুণের কদর করি খুব কম। কিন্তু মন্দটাকে সগর্বে প্রচার করে বেড়াতে পারি।

    মহাসংঘনায়ক শ্রীসদ্ধর্মভাণক বিশুদ্ধানন্দ মহাথের

  • যুদ্ধ সভ্যতাকে ধ্বংস করে এবং শান্তি বিশ্বকে সুন্দর করে । যুদ্ধ মানুষকে অমানুষ করিয়ে দেয়, যুদ্ধ ছিনিয়ে নেয় প্রেম-ভালবাসা এবং যুদ্ধের আগুনে আত্নহুতি দিতে হয় বহু প্রাণের । যুদ্ধকে মনে প্রাণে ঘৃণা করা উচিৎ।

    মহাসংঘনায়ক শ্রীসদ্ধর্মভাণক বিশুদ্ধানন্দ মহাথের

  • আপনি যেমন মহৎ চিন্তা করেন কাজেও সেইরুপ হউন, আপনার কথাকে কাজের সাথে এবং কাজকে কথার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ করে তুলুন।
    মহাসংঘনায়ক শ্রীসদ্ধর্মভাণক বিশুদ্ধানন্দ

পা-অক সেয়াদ, পর্ব-১

বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ ০২:৪২ রাজীব বড়ুয়া

পা-অক সেয়াদ, পর্ব-১

আচিন্ন ভান্তে, সাধারণত উনাকে 'পা-অক সেয়াদ' বা পা-অক তয়া সেয়াদ বলা হয়। তিনি বর্তমানে মায়ানমারের মন প্রদেশের (Mon State) পা-অক বনবিহারের অধ্যক্ষ এবং প্রধান গুরু হিসেবে আছেন। পা-অক সেয়াদের জন্ম ১৯৩৪ সালে, মায়ানমারের রেঙ্গুনের প্রায় ১০০ মাইল উত্তর-পশ্চিমে হিনথদ নামের একটি শহরের লেই-চোং নামের গ্রামে। ১৯৪৪ সালে ১০ বছর বয়সে তিনি তাঁর গ্রামের একটি বিহারে শ্রামণ হিসেবে প্রব্রজ্যা নেন।

পরের এক দশক ধরে তিনি সাধারণ পড়ুয়া শ্রামণ হিসেবে জীবনযাপন করেন। এবং বিভিন্ন গুরুর অধীনে পালি ত্রিপিটক শিক্ষা গ্রহণ করেন। সেয়াদ শ্রমণ থাকাকালীন তিনটি পালি ভাষা পরীক্ষায় পাস করেন। ১৯৫৪ সালে ২০ বছর বয়সে পা-অক সেয়াদ উপসম্পদা লাভ করেন। ১৯৫৬ সালে তিনি মর্যাদাসূচক ধম্মাচারিয়া পরীক্ষায়ও পাস করেন। এটি পালি শিক্ষায় বিএ পাসের সমমান এবং এতে করে তাঁকে 'ধর্মাচার্য্য' খেতাবে ভূষিত করা হয়।
পরবর্তী আট বছর ধরে তিনি ধর্মের অনুসন্ধানে সারা মায়ানমারে চষে বেড়ান এবং বিভিন্ন বিখ্যাত গুরুর কাছে ধর্ম শিক্ষা লাভ করেন। ১৯৬৪ সালে তাঁর ১০ম বর্ষাবাসে তিনি তাঁর ভাবনা চর্চার উপর জোর দেন এবং গভীর অরণ্যে চলে যান। পালি ত্রিপিটক সম্বন্ধে পড়াশোনার পাশাপাশি সেয়াদ সেই সময়কার বিখ্যাত এবং সন্মানিত ভাবনা গুরুদের কাছ থেকে অনেক মূল্যবান নির্দেশনা খুঁজে নেন।
পরের ১৬ বছর ধরে সেয়াদ অরণ্যে ভাবনা করাকেই তাঁর প্রধান কাজ হিসেবে নেন। তিনি সেই বছরগুলো মায়ানমারের দক্ষিণ অংশে মন প্রদেশে (Mon State) এ কাটান। সেই সময় সেয়াদ খুব সাদাসিদে জীবনযাপন করতেন। সেয়াদ পুরো সময়টা ভাবনা ও পালিশাস্ত্র পড়ে কাটাতেন।। চলবে............
সুত্রঃ জানা ও দেখা, সেয়াদের বই থেকে।

Nirvana Peace Foundation

নির্বাণা কার্যক্রম
Image
নির্বাণা পিস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিশু কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন নির্বাণা পিস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিশু কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা সম্পন্নশিশু কিশোরদের… ( বিস্তারিত )
Image
নির্বাণা পিস ফাউন্ডেশনের ব্যতিক্রমী আয়োজন নির্বাণা পিস ফাউন্ডেশনের ব্যতিক্রমী আয়োজন শিশু কিশোরদের মধ্যে ধর্মীয় চেতনা… ( বিস্তারিত )
Image
পূর্ব আধারমানিক মানিক বিহারে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্টের আর্থিক অনুদানের চেক প্রদান পূর্ব আধারমানিক মানিক বিহারে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্টের আর্থিক অনুদানের… ( বিস্তারিত )
আরও
সংবাদ সমীক্ষা
Image
সাহিত্যিক সাংবাদিক বিমলেন্দু বড়ুয়ার দশম মৃত্যুবার্ষিকী ২২ জানুয়ারি সাহিত্যিক সাংবাদিক বিমলেন্দু বড়ুয়ার দশম মৃত্যুবার্ষিকী ২২… ( বিস্তারিত )
আরও