২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ৬ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০১৭ইংরেজী

বৌদ্ধ ধর্ম ও দর্শন

বৌদ্ধ ধর্ম --- দুঃখ মুক্তির পথ নির্দেশনা

বৌদ্ধ ধর্ম --- দুঃখ মুক্তির পথ নির্দেশনা মহাকারুণিক তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধ যে ধর্ম দেশনা করে গেছেন, তা কেমন ধর্ম? বৌদ্ধ ধর্ম অকালিকো ধর্ম। অকালিকো অর্থ --- এই ধর্মটি এমন এক ধর্ম --- পৃথিবীর সব জায়গায়, সব দেশে, সব স্থানে একই রকম। সব রকম মানুষের কাছে, সে ধনী বা গরীব, ছেলে বা মেয়ে সবার কাছে একই রকম। শুধু মানুষ নয় সব রকম প্রাণীর কাছে একই রকম। স্থান-কাল-পাত্র ভেদে এর কোন পরিবর্তন…

জাতক কাহিনী : সুবর্ণ হংস

সুবর্ণ হংস জাতকের কাহিনী ভারতের Z-বাংলা চ্যানেলে চাঁদের বুড়ি ও ম্যাজিকম্যান সিরিয়ালের ৩০৮ এপিসোডে সুবর্ণ হংস জাতকের কাহিনী কার্টুন ভিডিও আকারে দৃশ্যায়িত হয়। ধর্ম প্রচারার্থে এবং আপনাদের সকলের দেখার সুযোগ করে দেবার জন্য এপিসোডটি এখানে আপলোড করা হল। নিজে দেখুন, এবং শেয়ার করে অন্যকে দেখার সুযোগ করে দিয়ে আপনিও ধর্মপ্রচারের অংশ হোন, ধর্ম প্রচার জনিত প্রভূত পূণ্যরাশি অর্জন করুন... সুবর্ণ হংস জাতক: পুরাকালে বোধিসত্ত্ব ব্রাহ্মণকুলে জন্মগ্রহণ করেন.পরিণত বয়সে এক ব্রাহ্মণ…

আত্মোন্নতি ও বিশ্বমৈত্রী কামনায় মৈত্রী ভাবনা অনুশীলন

আত্মোন্নতি ও বিশ্বমৈত্রী কামনায় মৈত্রী ভাবনা অনুশীলন ‘যো চ বস্স সতং জীবে অপসসং উদয়ব্বয়ং,একাহং জীবতিং সেয়্যা পস্সতং উদয়ব্বয়ং’। অর্থাৎ ‘স্মৃতিহীন হীনবীর্য হয়ে শত বৎসর বেঁচে থাকার চেয়ে স্মৃতিমান বীর্যবন্ত হয়ে ‘নাম-রুপের’ উদয়-ব্যয় দর্শন করে মুহুর্ত কাল বেঁচে থাকাই শ্রেয়’। সকল প্রাণীর প্রতি সমভাব এবং বিশ্বজনীন অনুভূতির বিপুল ঔদার্য এবং সাম্য-মৈত্রী-করুণার অমৃতময় বাণীতে সমৃদ্ধ বৌদ্ধধর্ম দেশ-কালের সীমারেখা পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্থান করে নিয়েছে অপূর্ব মহিমায়। জীবন ও জগত সম্পর্কে তথাগত বুদ্ধের…

পবিত্র মধু পূর্ণিমায় দুঃখ মুক্তি কামনায়

পবিত্র মধু পূর্ণিমায় দুঃখ মুক্তি কামনায় ‘‘আজিকার এই দিবসেতে চল সবাই বিহারেতে যায়,পুস্প পূজায় রত হয়ে বুদ্ধের গুণগান গায়’’ ‘‘পবিত্র এই পূর্ণিমাতে আপনাদের জীবনে বয়ে আনুক অনাবিল আনন্দ,মধু পূর্ণিমায় মধুর মত শুরু হোক প্রতিটা সকাল, প্রতিটা দিন, প্রতিটা মুহুত্ব’’ সারাদেশের বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে বৌদ্ধদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শুভ মধু পূর্ণিমা যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে। তথাগত গৌতম বুদ্ধ ভারতের এলাহাবাদের পূর্বদিকে পারল্যেয় বনে এক বর্ষাব্রত পালন করেছিলেন। সেখানে বনের পশুপাখি তাঁর…

বুদ্ধের মহানুভবতা

বুদ্ধের মহানুভবতা খুবই দরিদ্র ঝাড়–দার সুনীত। সংসারে যার আপন বলতে কেউ ছিল না। ভগবান বুদ্ধের সময়কালীন রাজগৃহের ধাঙর পল্লীতে একটি কুড়ে ঘরে বাস করত সুনীত। রাজগৃহের প্রশস্ত পথের নির্দিষ্ট অংশ ঝাড়– দেয়া এবং সেই ময়লা ঝুড়িতে ভর্তি করে নগরের বাইরে ফেলে আসা ছিল তার প্রাত্যাহিক কর্ম। কাজ সম্পাদনের ক্ষেত্রে সে ছিল খুবই নিরলস। খুবই মনোযোগের সহিত প্রতিদিন সে তার কাজ সম্পাদন করত। তবুও তার উপরওয়ালার কাছে কিংবা আশে পাশের মানুষের…

শ্রাবণী পূর্ণিমা'র তাৎপর্য

শ্রাবণী পূর্ণিমা'র তাৎপর্য তথাগত বুদ্ধের পরিনির্বাণের ৩ মাস পরে মগধরাজ অজাতাশত্র“র পৃষ্ঠপোষকতায় অরহত মহাকশ্যাপ স্থবিরের সভাপতিত্বে রাজগৃহের বেভার পর্বতের সপ্তপনী গুহায় ৫০০শত অহরত ভিক্ষু সংঘের উপস্থিতিতে প্রথম বৌদ্ধ সংগীতি বা ভিক্ষু সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল এই শ্রাবণী পূর্ণিমায় তিথিতে। তথাগত বুদ্ধের পরিনির্বাণের এত অল্প সময়ে কেন সম্মেলন আহ্বান করা হল অরহত মহাকশ্যপ এর বর্ণনায় আমরা সহজেই বুঝে নিতে পারি। কুশীনারায় মল্ল রাজাদের যুগ্ম শাল বৃক্ষ তলে তথাগত বুদ্ধ মহাপরিনির্বাণে নিবৃত্ত হলে…

শত্রুতা দ্বারা শত্রুতার উপশম হয়না

শত্রুতা দ্বারা শত্রুতার উপশম হয়না বুদ্ধের সময়ে কৌশাম্বীর ঘোষিতারাম সমৃদ্ধশালী নগরী ছিল। বুদ্ধ সেখানে নবম বর্ষাবাস যাাপনকালীন সময়ে জনৈক ভিক্ষু বিনয়-নিয়ম ভঙ্গ করে অপরাধ হয়েছে ভেবে প্রতিকার করতে চাইলে অন্য ভিক্ষুরা তাঁর অপরাধকে অপরাধ বলে মানলেন না। সেজন্য উক্ত ভিক্ষ ু অন্য সময়েও একে অপরাধ বলে মানতে রাজী না হওয়ায় ভিক্ষুরা তাঁর অপরাধ হয়েছে নিয়ে তাঁকে অপরাধ স্বীকার করতে বলেন। এতে ভিক্ষু বলেন----আমি এমন কিছু করিনি যাতে আমার অপরাধ হবে।…

আগামী বিশ্বের ধর্ম হবে মহাজাগতিক এবং তা বৌদ্ধধর্ম

আগামী বিশ্বের ধর্ম হবে মহাজাগতিক এবং তা বৌদ্ধধর্ম মহাজাগতিক মূলনীতি প্রকৃতপক্ষে কোন নীতি বা তত্ত্ব নয়, বরং এটি একটি স্বতঃসিদ্ধ। এটি বিপুল পরিমাণ মহাজাগতিক তত্ত্বের কার্যকারিতাকে সীমাবদ্ধ করে দেয়। মহাবিশ্বের বৃহৎ-পরিসর গঠন থেকে এই স্বতঃসিদ্ধটি উৎপত্তি লাভ করে। এই নীতির বিবৃতিটি হচ্ছে:“ বৃহৎ স্প্যাশিয়াল স্কেলে (spatial scale) মহাবিশ্ব সমসত্ব (homogeneous) এবং সমতাপীয় (isotropic) ।আসুন জেনে নিই এ নিয়ে প্রচলিত ধর্ম , দর্শন ও বিজ্ঞান কি বলে ......... ধর্ম , দর্শন,…

বৌদ্ধধর্মে জীবন দর্শন ও এর অনুশীলন

বৌদ্ধধর্মে জীবন দর্শন ও এর অনুশীলন বৌদ্ধধর্মের অন্যতম মূল বাণী হচ্ছে অহিংসা এবং শান্তি, মৈত্রী ও প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে সহাবস্থান করা। শুধু বৌদ্ধধর্মে কেন, অন্যান্য ধর্মের মধ্যেও এসব মর্মবাণী উচ্চারিত হয়েছে। তবে বৌদ্ধধর্মের মধ্যে যে পঞ্চনীতি তাঁর মর্মার্থ অতি গভীর এবং বিশাল মানবতা সম্পর্কযুক্ত যেমন বৌদ্ধধর্মে পঞ্চশীলে আছে কোনো প্রাণীকে বধ না করা বা কোনো প্রাণীকে হিংসা না করা, কোনো প্রকার চৌর্যবৃত্তি না করা, কোনো ধরনের মিথ্যা কথা না…

নির্বাণের স্বরূপ ও ধারণা

নির্বাণের স্বরূপ ও ধারণা বৌদ্ধ দর্শণের সর্বাপেক্ষা অবোধ্য কঠিন সমস্যা হল নির্বাণ কি? বৌদ্ধধর্ম বুদ্ধদেবের একশত বর্ষ পরে বিভিন্ন সম্প্রদায়ে বিভক্ত হয়ে পড়ে; এইসব সম্প্রদায় ভিন্ন ভিন্ন মতবাদের প্রচলন করে। অতি প্রাচীন সম্প্রদায় এর স্থবির বাদীদের নির্বাণ সম্বন্ধে পালিশাস্ত্রে যে মত গৃহীত হইয়াছে তাহাই প্রকাশ করবার মনস্থ করতেছি। এখন প্রশ্ন এই যে স্থবিরবাদ ও মাধ্যমিক দর্শনের মতবাদ কি এক না বিভিন্ন? গ্রন্থকার কিন্তু বিভিন্নতার কোনো ইঙ্গিত দেন নাই। গ্রন্থগার লিখিয়াছেন…

বুদ্ধ গুণ, ধর্ম গুণ, সংঘ গুণ অনন্ত অনন্ত

বুদ্ধ গুণ, ধর্ম গুণ, সংঘ গুণ অনন্ত অনন্ত বুদ্ধ গুণ অনন্ত, ধর্মগুণ অনন্ত, সংঘ গুণ অনন্ত। বুদ্ধগুণ অনন্ত : মহাকারুণিক বুদ্ধের নয়টি গুণের মধ্যে তিনি ০১. অরহং ০২. সম্মাসম্বুদ্ধো ০৩. বিজ্জাচরণসম্পন্নো ০৪. সুগতো ০৫. লোকবিদু ০৬. অনুত্তরো পুরিসধম্ম সারথি ০৭. সত্থা দেবমনুসসানং ০৮. বুদ্ধো ০৯. ভগবা। ০১.    অরহং : ভগবান গোপনেও কোন পাপ কর্ম করেন না বলে, ক্লেশ অরি থেকে দূরে অবস্থিত বলে, মার্গজ্ঞান দ্বারা রাগ দ্বেষ মোহ ও সমস্ত…

বৌদ্ধ ধর্মান্তর প্রসঙ্গে

বৌদ্ধ ধর্মান্তর প্রসঙ্গে - ভদন্ত এস. ধাম্মিকা ভদন্ত শ্রাবস্তী ধাম্মিকা ভান্তে ১৯৫১ সালে অষ্ট্রেলিয়ার এক খ্রিষ্টান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে বৌদ্ধধর্ম, বুদ্ধের শিক্ষা এবং বৌদ্ধ দর্শনের প্রতি তিনি গভীর থেকে গভীরতরভাবে অনুপ্রাণিত হতে থাকেন। অতঃপর ১৮ বছর বয়সে তিনি বৌদ্ধধর্ম গ্রহণ করেন। কুশল প্রশ্নোত্তর বইটি সম্পর্কে নিশ্চয় পরিচিত। এই বইটি ১৯৮৭ সালে প্রকাশিত, প্রাচ্য-পাশ্চাত্যের বৌদ্ধ দর্শন বিষয়ে বিদগ্ধ লেখকের প্রবন্ধ অবলম্বনে, ভদন্ত শ্রাবস্তী ধাম্মিকা ভান্তে প্রণীত, ‘Good…

শীল বিশুদ্ধিই নির্বাণের ভিত্তি

শীল বিশুদ্ধিই নির্বাণের ভিত্তি শীল হল সকল কুশল কর্মের ভিত্তি। বৌদ্ধ মাত্রই পঞ্চশীল পালন করা আবশ্যক। ধর্মময় উৎকৃষ্ট জীবন গঠনের নিমিত্তে অষ্টমী, অমাবস্যা ও পূর্ণিমা তিথিতে সারা বছর শীল পালন করা উচিত। তথাপি যাদের পক্ষে সম্ভব নয় তাদের অন্তত তিন মাস বর্ষাবাস সময়ে পালন করা একান্তই কর্তব্য। তাই দুর্লভ মানব জন্মকে আলস্য, অবহেলায় নষ্ট না করে শীল পালন ও অনুশীলনের মাধ্যমে ক্রমশ আত্মমুক্তি অর্থাৎ নির্বাণের দিকে অগ্রসর হওয়া উচিত। ||শীলের…

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের উৎসব আষাঢ়ী পূর্ণিমা

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের উৎসব আষাঢ়ী পূর্ণিমা আজ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের শুভ আষাঢ়ী পূর্ণিমা। এই পূর্ণিমা আবার ছোট ছাদাং নামেও অনধিক পরিচিত। কেননা বাংলা সনের আষাঢ় মাস হতে আশ্বিন মাস তিন মাসব্যাপী। এই পূর্ণিমার শুভ সূচনা ঘটে আষাঢ় মাসে তাই হয়তো এই পূর্ণিমা আষাঢ়ী পূর্ণিমা নাম খ্যাত। বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের বড়ণ্ডয়া, চাকমা, মার্মা, মার্মা, চাক, রাখাইন, তংচঙ্গ্যা ইত্যাদি জনগোষ্ঠী বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ভাবে আষাঢ়ী পূর্ণিমা পালন করেন। পূর্ণিমার দিন ভোর সকালে ছোট বড় সকলে…

আষাঢ়ী পূর্ণিমা বুদ্ধের পাঁচটি ঐতিহাসিক ঘটনার সমন্বয়

আষাঢ়ী পূর্ণিমা বুদ্ধের পাঁচটি ঐতিহাসিক ঘটনার সমন্বয় সিদ্ধার্থ গৌতম বা তথাগত বুদ্ধ মানবকুলে জন্ম নেয়ার জন্য তাঁর মাতৃগর্ভে (রাণী মহামায়া) প্রতিসন্ধি গ্রহণ, সিদ্ধার্থেও গৃহত্যাগ, সর্বপ্রথম গৌতম বুদ্ধ কর্তৃক ধর্মচক্র প্রবর্তন সূত্র দেশনা বা বৌদ্ধ ধর্মমত প্রচার, প্রাতিহার্য ঋদ্ধি তথা আধ্যাত্মিক শক্তি প্রদর্শন এবং গৌতম বুদ্ধের পরলোকগত মা (রাণী মহামায়া) কে অভিধর্ম দেশনা। মহামানব সিদ্ধার্থ গৌতম ও তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধের জন্মপূর্ব এবং জন্মোত্তর জীবনের পাঁচটি ঐতিহাসিক এই ৫টি ঘটনার সমন্বয় আষাঢ়ী…