২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ৬ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০১৭ইংরেজী

বৌদ্ধধর্ম ও বিজ্ঞান

বিদর্শন ভাবনাকে সর্বরোগের মহৌষধ কেন বলা হয়?

বিদর্শন ভাবনাকে সর্বরোগের মহৌষধ কেন বলা হয়? পৃথিবীতে শিক্ষিত-অশিক্ষিত অনেক লোকের মধ্যে দেখা যায় পর-পীড়ন, নিষ্ঠুর-আচরণ, হিংসা পরায়নতা, পরশ্রী কাতরতা, অনর্থক বাগাড়ম্বরতা, অহংকারিতা, অপরের প্রতি বিদ্বেষ প্রবণতা, অপরের শ্রী-সৌভাগ্যে নিরানন্দতা ইত্যাদি অমানবিক আচরণ সমূহ। এসব অগুণের কারণে দুর্লভ মানবজীবন হয়ে উঠে পশুতুল্য, দুর্বিসহ। এগুলি থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য কেহ কেহ যে প্রচেষ্টা করছেন না তাও নয়। তবে এ সব পাশবিক দোষ সমূহ থেকে সম্পূর্ণভাবে নিষ্ক্রান্ত হয়ে পূণ্য ও প্রজ্ঞাময় পরিশুদ্ধ…

বৌদ্ধ ধর্মই দিতে পারে বিশ্বব্রন্মান্ডের বিজ্ঞান ভিত্তিক ধর্ম ব্যাখ্যা : আলবার্ট আইনস্টাইন

বৌদ্ধ ধর্মই দিতে পারে বিশ্বব্রন্মান্ডের বিজ্ঞান ভিত্তিক ধর্ম ব্যাখ্যা : আলবার্ট আইনস্টাইন The religion of the future will be a cosmic religion. It should transcend a personal God and avoid dogmas and theology. Covering both the natural and the spiritual, it should be based on a religious sense arising from the experience of all things, natural and spiritual, as a meaningful unity. Buddhism answers this description.” ~ Albert Einstein এ…

পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বুদ্ধের নীতিকথা

পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বুদ্ধের নীতিকথা ৪৬০ কোটি বছর আগে জন্ম নেয়া বর্তমান পৃথিবীটা অনিন্দ্য সৌন্দর্যে ভরপুর। সাগর, গিরি, অরণ্য, বৈচিত্র্যময় ভূ-ভাগ এসব মিলে বিভিন্ন প্রাকৃতিক সম্পদের সুশৃঙ্খলতার বদৌলতে অপরাপর গ্রহ হতে পৃথিবী নামক এ গ্রহটি মানুষ তথা জীব বসবাসের জন্য একমাত্র উপযোগী গ্রহ বলে বিজ্ঞানের সিদ্ধান্ত। (বৌদ্ধ ধর্ম মতে কিন্তু একত্রিশ প্রকার লোকভূমি বিদ্যমান। যেমন মনুষ্য ভূমি, তির্যক বা পশু পাখি ভূমি, নরক, অসুর ও প্রেতভূমি, স্বর্গলোক ছয়টি, ষোল প্রকার…

বৌদ্ধদের ধর্মীয়, সামাজিক কুসংস্কার ও লৌকিক আচার-অনুষ্ঠান

বৌদ্ধদের ধর্মীয়, সামাজিক কুসংস্কার ও লৌকিক আচার-অনুষ্ঠান সারসংক্ষেপ: প্রাচীন কাল থেকে বাংলাদেশে বাঙালি বড়ুয়া বৌদ্ধ ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃতাত্ত্বিক বৌদ্ধ সম্প্রদায় চাকমা, মারমা, রাখাইন, চাক, ম্রো, খুমি, খিয়াং প্রমুখ বৌদ্ধ জনগোষ্ঠি বসবাস করে আসছে। বৌদ্ধরা এদেশের সচেতন ও শান্তিপ্রিয় নাগরিক। চিরাচরিত নিয়ম নীতি ও ধর্মীয় বিধি বিধানে বৌদ্ধরা সকল কাজকর্ম ও নিত্য নৈমিত্তিক জীবনযাত্রা অতিবাহিত করে থাকে। বলতে গেলে বৌদ্ধরা আদর্শিক জীবন গঠনে দৃঢ় প্রত্যয়ী। কোন রকম ধর্মীয়,…

মিথ্যাদৃষ্টি সম্পন্ন কে?

মিথ্যাদৃষ্টি সম্পন্ন কে? (সালেয্যক সুত্ত, মজ্ঝিম নিকায- অনুসারে) বৌদ্ধধর্মে মিথ্যাদৃষ্টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মিথ্যাদৃষ্টি পাপকাজ করার চেয়েও ভয়ঙ্কর। কারণ পাপকাজ কারীরা একটা সময় তার ফল ভোগ শেষে মুক্তিলাভের সুযোগ পেতে পারে যেমনটি পাবেন অনেক পাপকর্ম সম্পাদনকারী দেবদত্ত। কিন্তু মিথ্যাদৃষ্টি সম্পন্নদের মুক্তির আলোয় আসা সুদূর পরাহত। তাই আমাদের সম্যক দৃষ্টিসম্পন্ন হওয়া অত্যন্ত প্রয়োজন। দৃষ্টি সম্পর্কে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্নভাবে বিবরণ পাওয়া যায়। এখানে মজ্ঝিম নিকায়ের সালেয্যক সুত্ত অনুসারে মিথ্যাদৃষ্টি সম্পন্নের বিবরণ তুলে…

আগামী বিশ্বের ধর্ম হবে মহাজাগতিক এবং তা বৌদ্ধধর্ম

আগামী বিশ্বের ধর্ম হবে মহাজাগতিক এবং তা বৌদ্ধধর্ম মহাজাগতিক মূলনীতি প্রকৃতপক্ষে কোন নীতি বা তত্ত্ব নয়, বরং এটি একটি স্বতঃসিদ্ধ। এটি বিপুল পরিমাণ মহাজাগতিক তত্ত্বের কার্যকারিতাকে সীমাবদ্ধ করে দেয়। মহাবিশ্বের বৃহৎ-পরিসর গঠন থেকে এই স্বতঃসিদ্ধটি উৎপত্তি লাভ করে। এই নীতির বিবৃতিটি হচ্ছে:“ বৃহৎ স্প্যাশিয়াল স্কেলে (spatial scale) মহাবিশ্ব সমসত্ব (homogeneous) এবং সমতাপীয় (isotropic) ।আসুন জেনে নিই এ নিয়ে প্রচলিত ধর্ম , দর্শন ও বিজ্ঞান কি বলে ......... ধর্ম , দর্শন,…

কাল, মহাবিশ্ব, বুদ্ধ প্রভৃতি নিয়ে কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞ্যেস করা হয় কেন?

কাল, মহাবিশ্ব, বুদ্ধ প্রভৃতি নিয়ে কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞ্যেস করা হয় কেন? একসময় মচ্ছিকাসন্দ আম্রবনে অনেক ভিক্ষু সঙ্ঘ বাস করত। একদিন সেখানে চিত্ত নামের গৃহপতি প্রবেশ করে ভিক্ষু সঙ্ঘদিগকে নত হয়ে সম্মান জানিয়ে এক পাশে আসন গ্রহণ করল এবং তাঁদেরকে পরদিন সকালের ভোজনের জন্য নিমন্ত্রণ করল। ভিক্ষুগণ নিঃশব্দে তাঁর আমন্ত্রণ গ্রহণ করলেন। এটা বুঝতে পেরে গৃহপতি চিত্ত পুনরায় নত হয়ে সম্মান জ্ঞাপন করে সে স্থান ত্যাগ করল। রাতের অবসান হলে ভিক্ষুগণ…

ধ্যান কোর্সে অংশগ্রহণ এবং আমাদের করণীয়

ধ্যান কোর্সে অংশগ্রহণ এবং আমাদের করণীয় বর্তমান বৌদ্ধ সমাজে ধ্যান কোর্সে অংশগ্রহণ প্রক্রিয়া খুব বৃদ্ধি পেয়েছে। একটা সময় ছিল শুধুমাত্র আশ্বিনী পূর্ণিমা থেকে প্রবারণা পূর্ণিমার মধ্যে অর্থাৎ বর্ষাবাসকালীন সময়েই বিভিন্ন বিহারে ধ্যান কোর্সের আয়োজন করা হতো। বর্তমানে অনেক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। এখন বছরের প্রায় সময় বিভিন্ন মেডিটেশন সেন্টারসমূহ ধ্যান কোর্সের আয়োজন করে থাকে এবং গুরুত্ব সহকারে বিভিন্ন লিফলেট, পোষ্টারের মাধ্যমে প্রচারণা চালায় সাথে সাথে মানুষকে ধর্মকাজে উদ্বুদ্ধ করে। কারণ অনেকেই…

অবতারবাদ : বুদ্ধই সর্বশ্রেষ্ঠ এবং সাম্য-মৈত্রীর অদ্বিতীয় মহামানব

অবতারবাদ : বুদ্ধই সর্বশ্রেষ্ঠ এবং সাম্য-মৈত্রীর অদ্বিতীয় মহামানব ভারতবর্ষে বুদ্ধকে বৈদিক দেবতা বিষ্ণুর সঙ্গে সমীকরণ করা হয়। মৎসপুরাণে এ বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে। ভগবত পুরাণেও বুদ্ধকে বিষ্ণুর সঙ্গে সমীকরণ করা হয়। বুদ্ধকে ভারতীয় ধর্মীয় ঐতিহ্যে বিষ্ণুর নবম অবতার মনে করা হয়। বৌদ্ধধর্মের অনেক পন্ডিতের মতে, ভগবান গৌতম বুদ্ধ বেদবিরোধী ধর্ম প্রচার করার কারণে গৌতম বুদ্ধকে বিষ্ণুর নবম অবতার বানিয়ে হিন্দুত্ববাদীরা ফায়দা লুটে নিচ্ছে। এ প্রসঙ্গে আরো একটি ঐতিহাসিক মতবাদ রয়েছে,…

গৌতম বুদ্ধের প্রকৃতি প্রেম

গৌতম বুদ্ধের প্রকৃতি প্রেম গৌতম বুদ্ধের প্রকৃতি প্রেম আমরা গৌতম বুদ্ধের জীব প্রেম সম্পর্কে সকলেই অবগত। ‘জগতের সকল প্রাণী সুখী হউক’ অপ্রমেয় মৈত্রীর এ বাণীই তার উৎকৃষ্ট প্রমাণ। এবার আমরা আলোচনা করছি বুদ্ধের প্রকৃতি প্রেম নিয়ে। প্রকৃতির বিরূপ আচরণ, বৈশ্বিক উষ্ণতা এবং নানাবিধ প্রাকৃতিক বিপর্যয় নিয়ে বিশ্ব আজ উৎকণ্ঠিত। দিনে দিনে এ ধরিত্রীর আরো বিপর্যয়! বিশ্বের অস্তিত্বের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি কার্বনের নিঃসরণ না কমে বরং বাড়ছে। ফলে বিপর্যয় আরো…

প্রাচীন বৌদ্ধ মতবাদের পক্ষে আধুনিক বিজ্ঞান : সুখ ও সুস্বাস্থ্য

প্রাচীন বৌদ্ধ মতবাদের পক্ষে আধুনিক বিজ্ঞান : সুখ ও সুস্বাস্থ্য সভ্যতা এগিয়ে গেছে, মানুষ দিনে দিনে নানা নতুন নতুন আবিষ্কার করেছে। প্রতিনিয়তই মানুষ নতুন শিক্ষায় নতুনভাবে শিক্ষিত হয়েছে। এর অর্থ এই নয় যে, প্রাচীনকালের সব কিছুই ভুল। অতীতের অনেক কিছুই এখন ফিরে আসছে। আরিয়ানা হাফিংটনের নতুন বই 'থ্রাইভ : দ্য থার্ড মেট্রিক টু রিডিফাইনিং সাকসেস এন্ড ক্রিয়েটিং আ লাইফ অব ওয়েল-বিয়িং, উইসডম এন্ড ওয়ান্ডার' এর পুরো ৫৫ পাতাজুড়ে প্রাচীন মনোবিজ্ঞান…

বৌদ্ধধর্ম মতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় বা ট্রেজেডী

বৌদ্ধধর্ম মতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় বা ট্রেজেডীমূল (ইংরেজী)-ড. কে শ্রী ধম্মানন্দঅনুবাদ-বিজয় কুমার বড়ুয়া, এম, কম, এমবিএ (যুক্তরাজ্য) ২০০৪ সনের ডিসেম্বরে ভারত মহাসাগরের তীরবর্তী দেশসমূহে এশিয় সুনামী ট্রেজেডী যে আঘাত আনে তার মাধ্যমে বিভিন্নভাবে অনেকে এ ধরনের বিপর্যয়ের কারণ খুঁজতে গিয়ে প্রশ্ন করেছে পৃথিবীতে মানুষের সকল দুষ্কর্মের শাস্তি হিসেবে সৃষ্টিকর্তার অসন্তুষ্টির ফলে সংঘটিত হয়েছে কিনা?কতিপয় বর্হিশক্তি এ ধরনের ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতির কারণ হিসেবে মতামত প্রকাশ করার পূর্বে আমাদেরকে অবশ্যই অস্তিত্বের বিশেষ করে মানুষের…

ধ্যানে মানসিক চাপ কমে !

ধ্যানে কমে মানসিক চাপ । আপনি কি জানেন মাত্র আধা ঘণ্টা ধ্যান (মেডিটেশন) মানসিক চাপ প্রশমনে ওষুধ সেবনের চেয়েও উপকারী ! নিয়মিত ধ্যান মানসিক চাপ, উদ্বেগ, অস্থিরতা প্রশমনে ও ভালো ঘুমে সহায়ক। ধ্যানের এমন উপকারিতার বিষয়টি উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি গবেষণায়। সাড়ে ৩ হাজার মানুষের ওপর গবেষণাটি চালানো হয়। ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত ৩ হাজার ৫১৫ জন ধ্যানকারীর ওপর ছয় সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ চালান গবেষকরা। গবেষকদলের প্রধান যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির…

বৌদ্ধধর্ম কেন মহাজাগতিক ধর্ম

মহাজাগতিক মূলনীতি প্রকৃতপক্ষে কোন নীতি বা তত্ত্ব নয়, বরং এটি একটি স্বতঃসিদ্ধ। এটি বিপুল পরিমাণ মহাজাগতিক তত্ত্বের কার্যকারিতাকে সীমাবদ্ধ করে দেয়। মহাবিশ্বের বৃহৎ-পরিসর গঠন থেকে এই স্বতঃসিদ্ধটি উৎপত্তি লাভ করে। এই নীতির বিবৃতিটি হচ্ছে: “ বৃহৎ স্প্যাশিয়াল স্কেলে (spatial scale) মহাবিশ্ব সমসত্ব (homogeneous) এবং সমতাপীয় (isotropic) । আসুন জেনে নিই এ নিয়ে প্রচলিত ধর্ম ও বিজ্ঞান কি বলে ......... ধর্ম , বিজ্ঞান এবং মহাজাগতিকতাঃ মানুষ আজ পর্যন্ত চিন্তায় ও কর্মে…

মেডিটেশনে জিনগত পরিবর্তন!

গভীর ধ্যান বা মেডিটেশনে বিক্ষিপ্ত মন প্রশান্ত হয় এবং নির্দিষ্ট কোনো বিষয়ের প্রতি মনোযোগ বাড়ে। মেডিটেশনের প্রচলন রয়েছে বহুকাল আগে থেকেই। এবার নতুন এক গবেষণার ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও স্পেনের একদল মনোবিজ্ঞানী বলছেন, মেডিটেশনে মানসিক অবস্থার পাশাপাশি জিনগত অভিব্যক্তিও বদলে যায়।সাইকোনিউরোএন্ডোক্রিনোলজি সাময়িকীর আগামী ফেব্রুয়ারি সংখ্যায় এ গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। এতে মূলত দেখানো হয়েছে, মেডিটেশন মানসিক উত্তেজনা বৃদ্ধির জন্য দায়ী জিনগুলোর কার্যকারিতা সীমিত রাখতে পারে। সংশ্লিষ্ট গবেষক ও স্পেনের…