২৫৬১ বুদ্ধাব্দ ৬ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০১৭ইংরেজী

শিল্প ও সংস্কৃতি

বুদ্ধ মূর্তির উৎপত্তি ও ক্রমবিকাশ

পৃথিবীতে যখনই মানবতা বিপন্ন হয়, মনুয্যত্ব ভূলে গিয়ে মানুষ অধর্ম পথেপরিচালিত হয় তখন জগৎবাসীকে সৎ শিক্ষা দান এবং সৎপথে পরিচালিত করার উদ্দেশ্যআনুমানিক খ্রীষ্টপূর্ব ৬২৫ অব্দে গৌতম বুদ্ধ আবির্ভূত হন। সূর্ষ সদৃশতেজোদীপ্ত মহামানব বুদ্ধে আবির্ভাব বিশ্ববাসীর জন্যে ছিল এক মহা দুর্লভঘটনা। বর্ণে বর্ণে জাতিতে জাতিতে ভেদবুদ্ধির নিষ্ঠুর মূঢ়তা তখন রক্তেপঙ্কিল করে তুলেছিল এ ধরাতল। শ্রেণী ভেদ ও বর্ণ বিদ্বেষের ছিল নির্মমকঠোরতা। পুরোহিত প্রধান আনুষ্ঠানিক ক্রিয়া কান্ড ও যাগযজ্ঞে ধর্মের নামে বধকরা…

মান্না দে অব বাংলাদেশঃ নন্দিত কন্ঠশিল্পী অনুপ বড়ুয়া

গতকাল শুক্রবার ১ নভেম্বর সন্ধ্যায় গুলশানের ইন্দিরাগান্ধি কালচারাল সেন্টারে হয়ে গেল নন্দিত শিল্পী অনুপ বড়ুয়ার পরিবেশনায় বাংলাগানের কিংবদন্তি শিল্পী মান্না দে স্মরণে শিল্পী অনুপ বড়ুয়ার পরিবেশনায় মান্না দের প্রিয় গানের পরিবেশনা। শিল্পী প্রায় আড়াইঘন্টা ধরে মান্না দে’র গাওয়া প্রায়২৫ টি গান পরিবেশন করে শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন। এ রকম সন্ধ্যা অনেকদিন পর উপভোগ করলাম। সুরের মায়াবি জগতে হলের সব দর্শক মান্না দে ময় হয়ে গিয়েছিলেন। যখন শিল্পী ও দর্শক একত্রে গাইতে…

জি টিভি’র “বুদ্ধ “ সিরিয়ালে নাম ভূমিকায় নবাগত হিমাংশু সনি

জিটিভি’র “বুদ্ধ “ সিরিয়ালে গৌতম বুদ্ধের নাম ভূমিকায় অভিনয় করার জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হয়েছেন নবাগত নায়ক হিমাংশু সনি। বিকে মোদী প্রযোজিত “বুদ্ধ “ সিরিয়ালে এর আগে পরিচালক শেখর কাপুর নাম ভূমিকায় হলিউডের হার্টথ্রব নায়ক অরলান্ডো ব্লুমকে পছন্দ করেছিলেন। হিমাংশুকে সিলেক্ট করার পর তার জন্য একটি এপার্টমেন্ট নেয়া হয়েছে যেখানে তিনি একটি শান্ত ও প্রাকৃতিক পরিবেশে ধ্যান করবেন। তিনি এখন মার্শাল আর্টস ও ঘোড়া চালনা, তলোয়ার চালনা প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। এ প্রসঙ্গে…

জি টিভি’র “বুদ্ধ “ সিরিয়ালে যশোদরা’র ভূমিকায় মিস ইন্ডিয়া খ্যাত কাজল জৈন

বহুল আলোচিত বি কে মোদী প্রযোজিত জি টিভি’র বুদ্ধ সিরিয়ালে যশোদরা’র ভূমিকায় অভিনয় করছেন মিস ইন্ডিয়া খ্যাত কাজল জৈন । এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, আমি বুদ্ধ সিরিয়ালে যুবরাজ সিদ্ধার্থের স্ত্রী হিসাবে অভিনয় করছি। বুদ্ধের জীবনের সাথে ঘনিষ্ঠ এই চরিত্রে অভিনয় আমার জন্য একটি বড় ঘটনা। কাজল এখন তার চরিত্রটি আত্মস্থ করার কাজে ব্যস্ত। তার মতে, শৈশব হতেই নানা গল্প পাঠ করে আমি বৌদ্ধ ধর্মের সাথে সম্পৃক্ত ছিলাম। আমি চরিত্রটি…

বাঙলার আকাশে হিংসার কালো চাঁদ

সমুদ্র, নদী আর পাহাড়ের কোল ঘেঁষে গড়ে উঠেছে একটি শহর। এই জনপদেই শান্তির প্রতীক হয়ে প্রাচীন কাল থেকে আলো বিলিয়ে যাচ্ছে শাক্যমুনি বৌদ্ধবিহার। বৌদ্ধ, মুসলিম, হিন্দু—সবধর্মের মানুষের জন্যই বিহারের দরজা অবারিত। সহাবস্থান আর সম্প্রীতিই এই জনপদের রীতি। তবু একদিন হঠাৎ যেন বদলে গেল সবকিছু। শান্তির জনপদ পুড়ল হিংসার আগুনে। কীভাবে, কেন সবারই এই প্রশ্ন। বুদ্ধপূর্ণিমার চাঁদ ঢাকা পড়ল হিংসার বিষে। শুভ্র সাদা চাঁদ হয়ে উঠল কালো চাঁদ। গতসোমবার (২৮/১০/২০১৩) শিল্পকলা…

প্রথম লেখা এবং অতঃপর

প্রথমলেখা চিহ্নিত করা দুঃসাধ্য।কারণ কবি কিংবা লেখক হবারভাবনায় কোনোদিন লিখিনি। লিখেছিএকান্তমনের তাগিদে।আবেগে আনন্দে। সেই লেখা কখনোকবিতায় কখনো গল্পে অথবা অন্যভাবেরূপ নিয়েছে। এ ধরনের লেখালেখিরখেলা শুরু হয়েছিল আমার ১৯৪৮খ্রিস্টাব্দে। আমার প্রথমপ্রকাশিত লেখা ছিল একটিছড়া-কবিতা।তা-ওকোলা ব্যাঙ নিয়ে। প্রায় অর্ধযুগপড়ালেখা বন্ধ থাকার পর ৫ম ও৬ষ্ঠ শ্রেণী বাদ দিয়ে এক লাফে৭ম শ্রেণীতে ভর্তি হয়ে রীতিমতচ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হলাম।হালচাষের কাজ করেও পড়ালেখায়দারুণ উৎসাহী উদ্যামী হয়েওঠলাম। প্রচুর বই পড়তাম। পত্রপত্রিকা যা পেতাম গো- গ্রাসেগিলতাম। রাতেদিনে সময় পেলেই…

লোকজ জীবন ঘেরা বাংলার নববর্ষ

বাঙালির জাতীয় জীবনে আগামী দিনের উচ্ছাসময়তার বারতা বয়ে আনে নববর্ষ এক ব্যতিক্রমী মনোব্যঞ্জনা-আনন্দ দ্যোতনা নিয়ে। বাংলা নববর্ষের আগমনে পুলকিত হয়ে ওঠে গ্রাম বাংলার পদ-জনপদ যেন হিয়ায় হিয়ায় দোলা দিয়ে যায় মধুর অনাবিলতা। ছন্দে ছন্দে দুলে ওঠে পাওয়া না পাওয়ার হিসেব মিলাতে ব্যস্ত গ্রামীণ পট-আবহের বৃত্তবন্দি মানুষ। তারপরও তার নিভৃত উচ্চারন বোশেখ এলো-নববর্ষ এলো। শত বেদনা ব্যর্থতার মাঝেও তার চোখেমুখে যেন স্বস্তি। লোকজ সমাজ পরিমণ্ডলে এ যেন অপেক্ষার প্রহর কেটে নির্মল…

রবীন্দ্রজীবনে বুদ্ধের প্রভাব

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ জীবনের শেষপ্রান্তে এসে ১৩৪৭-র বৈশাখে নিজের ৮০তম জন্মদিনে মংপুতে বসে মহামানব বুদ্ধের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন এভাবে- কাল প্রাতে মোর জন্মদিনে এ শৈল-আতিথ্যবাসে বুদ্ধের নেপালী ভক্ত এসেছিল মোর বার্তা শুনে। ভূতরে আসন পাতি বুদ্ধের বন্দনামন্ত্র শুনাইল আমার কল্যাণে- গ্রহণ করিনু সেই বাণী। এ ধারায় জন্ম নিয়ে যে মহামানব সব মানবের জন্ম সার্থক করেছে একদিন, মানুষের জন্মক্ষণ হতে নারায়ণী এ ধরণী যাঁর আবির্ভাব লাগি অপেক্ষা করেছে বহু যুগ, যাঁহাতে…

বাংলাদেশে বৌদ্ধধর্মের প্রবেশ ও প্রত্নতাত্ত্বিক খনন কার্যে প্রাপ্ত বুদ্ধমূর্তি

বাংলাদেশে বৌদ্ধধর্মের ইতিহাস দুই উৎস থেকে পাওয়া যায়। প্রথমটি বৌদ্ধ সাহিত্য থেকে দ্বিতীয়টি খনন কার্যের মাধ্যমে। বৌদ্ধ সাহিত্য থেকে জানা যায় বুদ্ধ বাংলাদেশে এসে ধর্মপ্রচার করেছিলেন। বুদ্ধের আশিজন প্রখ্যাত শিষ্যগণের মধ্যে বঙ্গীশ ও বঙ্গম্তপুত্ত ছিলেন বাঙ্গালী। বঙ্গীশ থের বলেছেন “ বঙ্গে জাতত্বা বঙ্গানং ইস্মরোতি বঙ্গীসো মে নামং অভরো লোকসঙ্গতো। আমি বঙ্গে জন্মগ্রহণ করে বাঙ্গালী থেরগণের মধ্যে প্রধান ছিলাম। তাই বঙ্গীশ নামের জনস্বীকৃতি রয়েছে। শ্রেষ্ঠী অনাথপিন্ডদের কন্যা ধর্মপ্রাণা চুলসুভদ্রার মতান্তরে সুমাগধা…

রবীন্দ্রজীবনে বুদ্ধের প্রভাব

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ জীবনের শেষপ্রান্তে এসে ১৩৪৭-র বৈশাখে নিজের ৮০তম জন্মদিনে মংপুতে বসে মহামানব বুদ্ধের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন এভাবে- কাল প্রাতে মোর জন্মদিনে এ শৈল-আতিথ্যবাসে বুদ্ধের নেপালী ভক্ত এসেছিল মোর বার্তা শুনে। ভূতরে আসন পাতি বুদ্ধের বন্দনামন্ত্র শুনাইল আমার কল্যাণে- গ্রহণ করিনু সেই বাণী। এ ধারায় জন্ম নিয়ে যে মহামানব সব মানবের জন্ম সার্থক করেছে একদিন, মানুষের জন্মক্ষণ হতে নারায়ণী এ ধরণী যাঁর আবির্ভাব লাগি অপেক্ষা করেছে বহু যুগ, যাঁহাতে…